মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

বিশিষ্ট সমবায়ী মোছাঃ রোমেনা খাতুন এর সাফল্য গাঁথা।

ঝিনাইদহ জেলার সদর উপজেলাধীন ৫৩, গীতাঞ্জলি সড়কস্থ এলাকায় বসবাসকারী দরিদ্র জনগোষ্ঠীর ভাগ্যোন্নয়ন, সামাজিক উন্নতি, সমবায়ীদের উৎপাদিত হস্ত শিল্পজাত এবং অন্যান্য উৎপাদিত দ্রব্য সামগ্রী ন্যায্যমূল্যে বিক্রয় এবং বাজারজাতকরণসহ আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে সমবায়মনা রোমেনা খাতুনের ব্যক্তিগত উদ্যোগে ২০১৪ সালে নিউ শেল্টার সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমিতি গঠন করা হয়। পরবর্তীতে জেলা সমবায় দপ্তর থেকে ২৫/ঝি নিবন্ধনমূলে ০৩/০৭/২০১৪ খ্রিস্টাব্দ তারিখে নিবন্ধন প্রাপ্ত হয়।

অর্থনৈতিক কর্মকান্ডে অবদানঃ

সমিতির সকল খাতাপত্র সঠিকভাবে সংরক্ষণে তাঁর ভূমিকা অতুলনীয়। তিনি সমিতির রেকর্ড পত্রাদি সংরক্ষণে অত্যন্ত তৎপর থাকেন। সমিতির উন্নয়নে ও পুঁজি গঠনে তিনি সমিতির সদস্যদের অর্থদ্বারা ব্লক ও বাটিক হস্তশিল্প প্রকল্প চালু করেছেন। এছাড়া সমিতিতে রয়েছে মোমবাতি উৎপাদন প্রকল্প। তাঁর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় মহিলা সদস্যগণ নকশী কাঁথা উৎপাদন করে থাকে । তাঁর প্রচেষ্টায় সমিতির নিজস্ব পুঁজি ১,০০১৩০/- টাকায় উন্নীত হয়েছে। সমিতির বর্তমান আদায়কৃত শেয়ার মূলধনের পরিমাণ ৩০,৬০০/- টাকা এবং সঞ্চয় আমানতের পরিমাণ ৬৮,০৪৬/- টাকা। সমিতির বার্ষিক অডিট রিপোর্ট ও অন্যান্য রেকর্ডপত্র দৃষ্টে অত্র সমিতিতে কোন আর্থিক অনিয়ম পরিলক্ষিত হয়নি।

 

উন্নয়ন কর্মকান্ডে অবদানঃ

অত্র সমিতি বিভিন্ন কর্মকান্ডে এলাকায় ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়েছে। সমিতিতে ব্লক ও বাটিক হস্ত শিল্প, নকশীকাঁথা উৎপাদন এবং মোমবাতি উৎপাদন প্রকল্প চালু রয়েছে। জনাব রোমেনা খাতুন এর দিক নির্দেশনায় ক্ষুদ্র ঋণ প্রকল্প, অনুদান প্রকল্প, সঞ্চয় প্রকল্প চালু করে সফলতা অর্জন করেছে। তার একান্ত চেষ্টার ফলে এলাকার দারিদ্র দূরীকরণ, বাল্য বিবাহ রোধ ইত্যাদি বিষয়ে তিনি জনমনে সচেতনতা ও উদ্ধুদ্ধকরণ করতে সক্ষম হয়েছেন। বাংলাদেশ সমবায় একাডেমি কোটবাড়ী কুমিল্লা, আঞ্চলিক সমবায় ইনস্টিটিউট থেকে প্রশিক্ষণ গ্রহণসহ স্থানীয় ও জেলা ভ্রম্যমাণ প্রশিক্ষণ দল কর্তৃক আয়োজিত বিভিন্ন প্রশিক্ষণে তিনি অংশ গ্রহণ করে থাকেন।

 

কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে ভূমিকাঃ

সমিতিতে কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে তাঁর ভূমিকা উল্লেখ যোগ্য। তাঁর ব্যক্তিগত উদ্যোগ ও ঐকান্তিক চেষ্টার ফলে ইতো পূর্বে ১৩ জনের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। কর্মচারীদের দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য তিনি ব্যক্তিগত উদ্যোগে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে থাকেন।

 

উপসংহারঃ

জনাব মোছাঃ রোমেনা খাতুন বর্তমানে সমিতির সভাপতির দায়িত্ব পালন করে চলেছেন এবং তার আদর্শ ও কর্মদক্ষতার যথার্থ প্রয়োগের মাধ্যমে দেশের দারিদ্র বিমোচন ও আর্থ সামাজিক উন্নয়নে অত্র সমিতি  এলাকায় বিশেষ অবদান রেখে চলেছে। রোমেনা খাতুনের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় একদিন এ সমিতি সাফল্যের সর্বোচ্চ শিখরে উ্ঠবে বলে সমিতির সদস্যগণ মনে করেন।

ছবি

282d87cffa78d8496246085442ac96f4.pdf 282d87cffa78d8496246085442ac96f4.pdf


সংযুক্তি

8cbf83b5b420a8e057f18027fce6ddc7.pdf 8cbf83b5b420a8e057f18027fce6ddc7.pdf


সংযুক্তি (একাধিক)

f8a622cd25f720f7d0a623b9eeaa2c62.pdf f8a622cd25f720f7d0a623b9eeaa2c62.pdf
a4222cbbd6090e661233e9cad87c9ddc.pdf a4222cbbd6090e661233e9cad87c9ddc.pdf


Share with :

Facebook Twitter